TANGOAR HAOR

80
distance from sylhet city (in km)

Location

Tangoar Haor, Sunamgonj
Sylhet

 

Overview

At the foot of the Meghalaya ranges in the middle of Tahirpur and Dharmapasha Upazilla under Sunamgonj district in north-east Sylhet is a vast swampland popularly known as Tangoar Haor that spans over an area of nearly 100 square kilometres. Cascading from the Meghalaya about 30 waterfalls flow into this large water body engendering a charm that is truly rare. In 2000, it was internationally recognised as a Ramseur site. After the Sundarbans, it is the second Ramseur site in Bangladesh. Prior to that, in 1999, the government of Bangladesh earmarked Tangoar Haor as an ecologically critical area.

Tangoar Haor, which is a crucial hub for biodiversity, is home to a diverse range of birds. In winter, numerous migratory birds join the local birds giving rise to an eye-soothing abundance of fauna.


Tangoar Haor, which is a crucial hub for biodiversity, is home to a diverse range of birds. In winter, numerous migratory birds join the local birds giving rise to an eye-soothing abundance of fauna. There are a total of 51 species of birds. Besides rare species of Palace eagles and large grey king storks from among the migratory birds, the swampland is inhabited by numerous local species of birds including vultures, seagulls and cranes in addition to six species of mammals, four species of snakes, six species of turtles, seven species of lizards as well as rare species of amphibians.

According to Professor Ali Reza Khan, Tangoar Haor is inhabited by a total of 250 species of birds, 140 species of fish, more than 12 species of frogs, over 150 species of reptiles and over 1,000 invertebrates.

Tangoar Haor is worth visiting in winter (December to February) when tourists would be greeted by thousands of local and migratory species of birds, as well as in the rainy season (June to August) when bustling waves together with incessant rains and Meghalayan clouds create a scene that charms all and sundry.

উত্তর পশ্চিম সিলেটে, মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর ও ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যবর্তী স্থানে প্রায় ১০০ বর্গকিমি এলাকা জুড়ে টাঙ্গুয়ার হাওরের অবস্থিতি। মেঘালয় পাহাড় থেকে ৩০ টির মতো ঝর্না/ ছড়া এসে মিশেছে এই হাওরে। ২০০০ সালে এটি ‘রামসার সাইট’ হিসাবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করে। সুন্দরবনের পর এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় রামসার সাইট। এর আগে ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ সরকার টাঙ্গুয়ার হাওরকে ‘পরিবেশগত সংকটাপন্ন এলাকা’ হিসেবে ঘোষনা করে।

টাঙ্গুয়ার হাওর জীববৈচিত্রের এক অনন্য আঁধার। শীতকালে এখানে স্থানীয় পাখীদের সাথে হাজার হাজার পরিযায়ী পাখী এসে ভীড় জমায়। এ হাওরে প্রায় ৫১ প্রজাতির পাখি বিচরণ করে। পরিযায়ী পাখিদের মধ্যে বিরল প্রজাতির প্যালাসেস ঈগল, বড় আকারের গ্রে কিংস্টর্ক রয়েছে এই হাওড়ে। স্থানীয় জাতের মধ্যে শকুন, পানকৌড়ি, বেগুনি কালেম, ডাহুক, বালিহাঁস, গাঙচিল, বক, সারস[২], কাক, শঙ্খ চিল, পাতি ইত্যাদি পাখির নিয়মিত বিচরণ এই হাওরে। এছাড়াও ৬ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী, ৪ প্রজাতির সাপ, বিরল প্রজাতির উভচর, ৬ প্রজাতির কচ্ছপ, ৭ প্রজাতির গিরগিটিসহ নানাবিধ প্রাণীর বাস, এই হাওরের জীববৈচিত্র্যকে করেছে ভরপুর।

অধ্যাপক আলী রেজা খান-এর বর্ণনানুযায়ী এই হাওরে সব মিলিয়ে প্রায় ২৫০ প্রজাতির পাখি, ১৪০ প্রজাতির মাছ, ১২'র বেশি প্রজাতির ব্যাঙ, ১৫০-এর বেশি প্রজাতির সরিসৃপ এবং ১০০০-এরও বেশি প্রজাতির অমেরুদণ্ডী প্রাণীর আবাস রয়েছে।

পর্যটকদের জন্য অন্ততঃ দুবার টাঙ্গুয়া হাওর ভ্রমন করা অবশ্যক। একবার প্রবল বর্ষায় ( মধ্য জুলাই থেকে মধ্য আগষ্টের মধ্যে) আরেকবার তীব্র শীতে ( মধ্য ডিসেম্বর থেকে মধ্যে জানুয়ারীর মধ্যে)। শীতে হাজার হাজার পাখী এসে স্বাগতঃ জানাবে পর্যটকদের। আর বর্ষায় সমুদ্রের মতো উত্তাল জলরাশি, প্রবল বৃষ্টি আর মেঘালয় পাহাড় জুড়ে থোকা থোকা মেঘের বিচরন- এক অনন্য অভিজ্ঞতা।

শীতকালে সুনামগঞ্জ শহরের সাহেববাড়ীর খেয়াঘাট পাড় হয়েই ভাড়ার মোটর সাইকেল পাওয়া যায়। মোটর সাইকেলে চড়ে চলে যেতে হয় তাহিরপুর অথবা টেকেরঘাট। সময় লাগবে দু ঘন্টার মতো। তাহিরপুর কিংবা টেকের ঘাট থেকে নৌকা ভাড়া করে ঘুরা যায় টাঙ্গুয়ার হাওরে। বর্ষাকালে সুনামগঞ্জ থেকে বজরা ভাড়া করে অনেকেই দলবদ্ধ হয়ে টাঙ্গুয়া যান। বজরায় রাত্রিযাপন ও করা যায়। প্রতিদিনের জন্য বজরা ভাড়া পড়ে প্রায় ১০ হাজার টাকা। তবে বর্ষাকালে হাওর যেরকম উত্তাল থাকে, লাইফ জ্যাকেট ও অন্যান্য সতর্কতামুলক ব্যবস্থা ছাড়া টাঙ্গুয়া হাওর ভ্রমন করা সমীচিন নয়- যদিও বর্ষাকালেই টাঙ্গুয়ার রূপ হয়ে উঠে অতুলনীয় সুন্দর। সবচেয়ে ভালো হচ্ছে, সুনাগঞ্জ থেকে লঞ্চ ভাড়া নিয়ে পুরো টাঙ্গুয়া ঘুরে আসা। স্বভাবতইঃ এটা বেশ খরুচে বিষয়। লঞ্চ নিয়ে সুনামগঞ্জ থেকে তাহিরপুর গিয়ে টাঙ্গুয়া ঘুরে টেকেরঘাট হয়ে ফিরে আসা যায়। টেকেরঘাট হচ্ছে মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশে বাংলাদেশের চুনাপাথর খনি প্রকল্প, যদি ও বর্তমানে এটি পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে।

তাহিরপুর বাজারে একটি মাত্র হোটেল আছে, নিম্নমানের। এ ছাড়া জেলা পরিষদের একটি বাংলো আছে, অনুমতি নিয়ে থাকা যায়। টেকেরঘাট খনি প্রকল্পে ও তাদের নিজস্ব বাংলো আছে।
  • Monsoon (APR - NOV)
    Winter (DEC - FEB)

    Best Time to Visit

Plan Your Visit

In winter tourists can hire motor bikes from Shaheb-bari Kheyaghat in Sunamganj and go to Tahirpur or Takerghat in a couple of hours. From either of the places a boat may be hired to roam about Tangoar Haor. In the rainy season, many tourists hire a bojra – a spacious mechanised local boat suitable for overnight stay – from Sunamgonj to visit Tangoar Haor. Hiring a bojra costs about 10,000 BDT a day. However, it is not a good idea to visit Tangoar Haor in the rainy season without a life jacket and other necessary precautions in view of the rough, wavy waterline, despite the unparalleled splendour that this large water body exhibits in this season.

The best option is to hire a launch (a steamer-like engine-operated boat) from Sunamganj, travel to Tangoar Haor via Tahirpur and finally reach Takerghat, which is a Bangladeshi limestone mine at the foot of the Meghalayan ranges currently lying in an abandoned state.
There is only one hotel in Tahirpur Bazar and this too is a low-quality one. Besides this, there is a bungalow owned by the District Council where one can stay overnight with prior permission. The mine project at Takerghat also has a bungalow of its own.
Food may consume at Tahipur Bazar Or Takerghat/ Borsora Bazar. Even boat man may arrange fresh fish at their boat.
Using life-jacket is mandatory during visit in Tangoar haor at monsoon.

As it is under Tahirpur Thana Of Sunamgonj District for any help need to call UNO- 01716192749.
We can arrange a visit for you!

Nearby Places

within 50 km